1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Editor :
বীর মুক্তিযোদ্ধা হত্যাকান্ডের ঘটনায় মামলা - বাংলা টাইমস
বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৩:১৬ অপরাহ্ন

বীর মুক্তিযোদ্ধা হত্যাকান্ডের ঘটনায় মামলা

লালমনিরহাট প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ২২ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ২৭ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম মহিলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ও বীর মুক্তিযোদ্ধা ওয়াজেদ আলীকে (৬৮) হত্যাকান্ডের ঘটনায় একজন আসামির নাম উল্লেখ করে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

 

রবিবার (২২ জানুয়ারী) সকালে হত্যাকান্ডের শিকার ওয়াজেদ আলীর ছেলে রিফাত হাসান বাদী হয়ে পাটগ্রাম থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

জানা গেছে, গত ২০জানুয়ারী রাত অনুমান সাড়ে ৯টা থেকে রাত ১০টার মধ্যবর্তী সময়ে আসামি মোঃ নাহিদুজ্জামান প্রধান ওরফে বাবু (২৫) পরিকল্পিতভাবে অজ্ঞাতনামা আসামি সহ কয়েকজন তার বাবাকে বাড়ির সামনে পাকা রাস্তায় আটক করে ধারালো অস্ত্র দিয়ে উপর্যুপরি আঘাত করে হত্যা করে পালিয়ে যায়।

আসামী নাহিদুজ্জামান প্রধান (বাবু) (২৫),পাটগ্রাম পৌর এলাকার রসুলগঞ্জ নিউ পূর্বপাড়া মোঃ আব্দুস সামাদ প্রধান ছেলে। নিহত এম ওয়াজেদ আলী ও আসামী নাহিদুজ্জামান প্রধান (বাবু) প্রতিবেশী।

জানা গেছে,পাটগ্রাম ফাতেমা প্রি ক্যাডেট এর অধ্যক্ষ দায়িত্ব¡ পালন করেছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আওয়ামী লীগ নেতা, এম ওয়াজেদ আলী। ওই প্রি ক্যাডেট স্কুলে শিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন নাহিদুজ্জামান প্রধান(বাবু)। বার্ষিক পরীক্ষার খাতা মূল্যায়ন নিয়ে অধ্যক্ষের সাথে দ্বদ্ব সৃষ্টি হয় নাহিদুজ্জামান প্রধান(বাবু)। এরপর থেকে নাহিদুজ্জামান প্রধান(বাবু) ফাতেমা প্রি ক্যাডেট স্কুলে আর যায়নি।

এরপর গত ৬ জানুয়ারি নাহিদুজ্জামান প্রধান (বাবু) তার ফেসবুক টাইমলাইনে একটি স্ট্যাটাস দেন তাতে সে লেখেন”সফলতার অন্যতম মূলমন্ত্র হলো প্রতিহিংসার উর্ধে ওঠ। কারণ প্রতিহিংসার বসে আপনার কাছের মানুষগুলো না চেয়েও আপনার ক্ষতি করে বসে।”

বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সাবেক অধ্যক্ষ ও আওয়ামী লীগ নেতা এম ওয়াজেদ আলী হত্যাকান্ডের ঘটনার পর থেকে নাহিদুজ্জামান প্রধান (বাবু) বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়ে নিজের ফোনটি বন্ধ রাখেন। এ থেকেই সবার সন্দেহ সৃষ্টি হয় সে হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত।

এই হত্যাকান্ডের মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পাটগ্রাম থানার (ওসি তদন্ত) মোঃ আব্দুল মোত্তালিব সরকারকে দায়িত্ব নিয়েছেন।

এ বিষয়ে পাটগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ ওমর ফারুক বলেন, মামলার এজাহানামীয় আসামি সহ অন্যান্য অজ্ঞাত আসামি গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত আছে। আশা করি আসামিরা খুব দ্রæত গ্রেফতার হবেন।

প্রসঙ্গত,গত শুক্রবার (২০ জানুয়ারি) দিনগত রাত সাড়ে ৯টার দিকে পাটগ্রাম পৌর এলাকার পাটগ্রাম পূর্বপাড়ার নিজ বাসার সামনে পাটগ্রাম মহিলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ও বীর মুক্তিযোদ্ধা এম ওয়াজেদ আলীকে (৬৮) ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা ।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় সিসা হোস্ট