1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Editor :
শতকরা ২৬ জন উচ্চ রক্তচাপে ভুগছেন - বাংলা টাইমস
বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:২৭ পূর্বাহ্ন

শতকরা ২৬ জন উচ্চ রক্তচাপে ভুগছেন

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ৩১ অক্টোবর, ২০২২
  • ৫১ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

নারায়ণগঞ্জ শহরের ১০০ জনের মধ্যে ২৬ জন উচ্চ রক্তচাপের মতো অসংক্রামক রোগে ভুগছেন। এই তালিকায় শীর্ষে রয়েছে সকাল-সন্ধ্যা অফিসে বসে কাজ করা চাকরিজীবী ও ব্যবসায়ীরা। এছাড়া শহরবাসীর শতকরা সাতজনের স্থুলতা রয়েছে। এই স্থূলতা তাদের উচ্চ রক্তচাপ ও ডায়েবেটিকসের ঝুঁকিতে ফেলে দিচ্ছে।

 

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের (নাসিক) এক সমীক্ষায় এই তথ্য উঠে এসেছে। সোমবার (৩১ অক্টোবর) বিকেলে সমীক্ষার ফলাফল জানাতে নগরভবনে অনুষ্ঠিত এক সভায় এই তথ্য জানানো হয়।

জনস্বাস্থ্য ব্যবস্থা শক্তিশালী করার লক্ষে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের তিনটি অঞ্চলের নয়টি ওয়ার্ডের ১২ হাজার মানুষের উপর ‘উচ্চ রক্তচাপ ও স্থূলতা স্ক্রিনিং’ করা হয়। সেভ দ্য চিলড্রেন ও সিডিসির সহযোগিতায় এপ্রিল থেকে জুলাই পর্যন্ত এই কার্যক্রম চলে।

নাসিকের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শেখ মোস্তফা আলীর সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম, জনস্বাস্থ্য ও রোগতত্ত্ব বিশেষজ্ঞ ও সেভ দ্য চিলড্রেনের কনসাল্টেন্ট ডা. নিজাম আলী, ইউনিসেফ প্রতিনিধি ডা. ফারহানা আক্তার প্রমুখ।

ডা. নিজাম আলী জানান, ত্রিশোর্ধ্ব বয়সী ১২ হাজার মানুষের উচ্চ রক্তচাপ ও স্থূলতা পরীক্ষা করা হয়। তাদের মধ্যে ২৬ শতাংশের উচ্চ রক্তচাপ রয়েছে। ৬ শতাংশ উচ্চ রক্তচাপের কারণে ঝুঁকিতে রয়েছেন। এছাড়া শহরের ৬ শতাংশেরও বেশি মানুষের স্থূলতা রয়েছে।

উচ্চ রক্তচাপ ও স্থূলতা অসংক্রামক হলেও মানুষকে তা মারাত্মক মৃত্যুঝুঁকিতে ফেলে মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘সারাবিশ্বে ১৩ শতাংশ মৃত্যু হয় উচ্চ রক্তচাপের কারণে। স্থূলতা উচ্চ রক্তচাপের একটি বড় কারণ। একনাগারে ডেস্কে বসে কাজ করা চাকরিজীবী ও ব্যবসায়ীদের উচ্চ রক্তচাপ বেশি পাওয়া গেছে। কেননা তারা মানসিক চাপের মধ্যে থাকেন এবং শারীরিক ব্যায়াম কম করে থাকেন।’

অসংক্রামক হলেও উচ্চ রক্তচাপ ও স্থূলতা নিয়ে মানুষের সচেতনতা বাড়ানো প্রয়োজন বলে মন্ত্য করে শহিদুল ইসলাম বলেন, ‘করোনার মতো সংক্রামক রোগ নিয়ে মানুষ যতটা সচেতন উচ্চ রক্তচাপ, ডায়েবেটিকস বা স্থূলতা নিয়ে ততটা সচেতন নন। অথচ এসব রোগে আক্রান্ত হয়েই অনেকে মারা যাচ্ছেন। সচেতনতা তৈরি হলে এই রোগ হওয়ার পূর্বেই প্রতিরোধ করা যায়, হলেও নিয়ন্ত্রণ করা যায়।’

জনস্বাস্থ্য শক্তিশালী করতে এই পরিসংখ্যান গুরুত্ব বহন করবে বলে মন্তব্য করেন নিজাম আলী। তিনি বলেন, এই পরিসংখ্যানের উপর ভিত্তি করে আগামীতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও স্থানীয় সরকারের পরামর্শ ও সহযোগিতায় জনস্বাস্থ্য শক্তিশালী করতে প্রয়োজনী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় সিসা হোস্ট