1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Editor :
শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৭:২২ অপরাহ্ন
নোটিশ ::
...Welcome To Our Website...

মন্দিরে হামলার অভিযোগে ছাত্রলীগ কর্মী গ্রেফতার

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ১৩ নভেম্বর, ২০২১
  • ৩৩ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ উপজেলার ৪নং ইউনিয়নের ৫টি মন্দির ভাংচুরের ঘটনায় নামধারী ছাত্রলীগ নেতা পরিচয় দানকারী মো. মনোয়ার হোসেন মুন্না নামের একজনকে গ্রেফতার করেছে রামগঞ্জ থানা পুলিশ। শুক্রবার (১২নভেম্বর) রাতে রামগঞ্জ থানার এএসআই হাবিবুর রহমান গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রামগঞ্জ থানার সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করে।

 

পরে শনিবার (১৩ নভেম্বর) দুপুরে মুন্নাকে লক্ষ্মীপুর জেলা হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। মুন্না উপজেলার ৪নং ইছাপুর ইউনিয়নের উত্তর সোন্দড়া বেপারী বাড়ির আবদুল মজিদ বেপারীর ছেলে।

জানা যায়, উপজেলার ইছাপুর ইউনিয়নে ৫টি মন্দিরে দুর্গাপুজা চলাকালীন সময় গত ৬ অক্টোবর রাতে মনোয়ার হোসেন মুন্না নিজ ফেইজবুক আইডিতে লাইভে ঘোষনা দিয়ে বেশ কয়েকটি মন্দিরে হামলা চালিয়ে ভাংচুর চালায় বলে পুলিশ জানায়। এ ঘটনায় নাশকতার দায়ে রামগঞ্জ থানা পুলিশ ৭ অক্টোবর বেশ কয়েকজনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশ ছাত্রলীগ নেতা পরিচয় দানকারী মুন্নাকে গ্রেফতার করে। আটকের পর মুন্না স্বীকাররোক্তি মূলক জবানবন্দী দিয়েছে থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।

ইছাপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি রিপন হোসেন ও সেক্রেটারী মোঃ জসিম উদ্দিন জানান, মুন্না ছাত্রলীগের কোন পদ-পদবিতে নাই। কোন নাশকতাকারী ছাত্রলীগ নেতা হতে পারেনা। কেউ কোন সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের সাথে জড়িত থাকলে তার দায়িত্ব ছাত্রলীগ নেবেনা। আমরা মুন্নার কঠোর শাস্তি দাবি করছি।

রামগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন বাংলঅ টাইমসকে জানান, মন্দির ভাংচুরের ঘটনায় মুন্নাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকী আসামীদের গ্রেপ্তারের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় সিসা হোস্ট