1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Editor :
অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ জাহাজভাঙা কারখানা - বাংলা টাইমস
সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০২:৫৮ অপরাহ্ন

অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ জাহাজভাঙা কারখানা

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১০ নভেম্বর, ২০২১
  • ৩২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

চট্টগ্রামে ভ্যাট কর্মকর্তাদের হয়রানীর প্রতিবাদে শীপ ব্রেকিং শিল্পে ধর্মঘট শুরু হয়েছে।মঙ্গলবার (৯ নভেম্বর) চট্টগ্রামের ভাটিয়ারিতে চারটি জাহাজভাঙা কারখানার সব নথি ও কম্পিউটার জব্দ করেছে ভ্যাট কর্মকর্তারা। সাড়ে ১০টা পর্যন্ত কারখানাগুলোর প্রধান কার্যালয় ও কারখানা কার্যালয়ে এ অভিযান চালানোর সময় প্রতিষ্টানের কর্মকর্তাদের সাথে অসৌজন্যমুলক আচরনসহ হয়রানীর প্রতিবাদে ধর্মঘটে গেছেন বলে জানান, বাংলাদেশ শিপ ব্রেকার্স অ্যান্ড রিসাইক্লার্স অ্যাসোসিয়েশন বিএসবিআরএর সহকারী সচিব নাজমুল ইসলাম।

 

জাহাজভাঙা মালিকদের সংগঠন বাংলাদেশ শিপ ব্রেকার্স অ্যান্ড রিসাইক্লার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিএসবিআরএ) সভাপতি এম এ তাহের জানান,আমদানীকৃত স্ক্র্যাপ জাহাজ সমুদ্রের বহিনোঙ্গরে পৌছার পর কাষ্টমসের রামেজিং টিম সরেজমিন পরিদর্শন করে শুল্ক নির্ধারণ।ইয়ার্ডে জাহাজ ব্লিচিংয়ের পুর্বে শুল্ক অগ্রিম পরিশোধ করা হয়। পাশাপাশি মুল্য সংযোজন কর মুসক,সম্পুরক শুল্ক সহ সরকারী সব ফিস জাহাজ বিভাজনের পুর্বে অগ্রিম পরিশোধ করা হয়।ইয়ার্ড মালিক প্রতি অর্থবছরে সরকারী ভ্যাট,শুল্ক ও কর বাবদ ১২ শো কোটি টাকা রাজস্ব পরিশোধ করেন বলে জানানো হয়।

সীতাকুণ্ডের উপকূলে মোট ১৫০টি জাহাজভাঙা কারখানা রয়েছে। এর মধ্যে সচল কারখানার সংখ্যা ৬০টি। এ কারখানাগুলোতে ২৫ হাজার শ্রমিক কাজ করেন। কারখানা বন্ধের কারণে বুধবার থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্মহীন হয়ে পড়েছে শ্রমিকরা।শ্রমিকদের অধিকাংশ দৈনিক মুজুরীর ভিত্তিতে ইয়ার্ডগুলোতে কাজ করেন।

 

ভ্যাট কর্মকর্তারা অভিযানের সময় ভাটিয়ারি স্টিল শিপব্রেকিং ইয়ার্ড, প্রিমিয়ার ট্রেড করপোরেশন, মাহিনুর শিপব্রেকিং ইয়ার্ড ও এসএন করপোরেশনের নথিপত্র জব্দ করে নিয়ে যায়। অভিযানের সময় কর্মকর্তারা প্রতিষ্টানের কর্মকর্তাদের সাথে অসজৌন্যমুলক আচরন ছাড়াও এক ধরনের তাণ্ডব চালিয়েছে বলে অভিযোগ করেন বিএসবিআরএর সহকারী সচিব নাজমুল ইসলাম।

এ ব্যাপারে ভ্যাটের সহকারী পরিচালক হাসান মাহামুদ জানান,কিছু প্রতিষ্টানে ভ্যাট ফাকির অভিযোগ ছিলো।সে কারনে চারটি প্রতিষ্টানে অভিযান চালঅনো হয়েছে।কাগজপত্র সঠিক না পেলে তাদের বিরুদ্বে ব্যবস্হা নেয়া হবে।তবে হয়রানী সহ নানা অভযিোগ অস্বীকার করেন কর্মকর্তারা।

 

এ ঘটনার প্রতিবাদে সীতাকুণ্ডে সব কটি জাহাজভাঙা কারখানা অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে বিএসবিআরএ। ফলে বুধবার থেকে কারখানায় জাহাজ কাটিং, স্ক্র্যাপ সরবরাহসহ সব ধরনের কার্যক্রম বন্ধ থাকবে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় সিসা হোস্ট