1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Editor :
মাদক চোরাকারবারীদের হামলার শিকার আ' লীগ নেতা - বাংলা টাইমস
রবিবার, ২২ মে ২০২২, ১০:১৮ পূর্বাহ্ন

মাদক চোরাকারবারীদের হামলার শিকার আ’ লীগ নেতা

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ৪ নভেম্বর, ২০২১
  • ৭৫ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

বিগত সময়ে একটি পত্রিকায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার ভোলাহাট উপজেলার চরধরমপুরকে ঘিরে মাদক চোরাচালান বন্ধ করার খবর প্রকাশিত হলে চোরাকারবারীদের বিরুদ্ধে অবস্হান নিয়ে এর প্রতিবাদ সমাবেশ করেন ভোলাহাট ইউনিয়ন আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মোশারফ হোসেন।

 

এর জের ধরে নেপথ্যের হুকুমদাতা আব্দুল মতিনের ঈশারায় মোয়াজ্জেম হোসেন ভুটু মেম্বারসহ কালো কাপড়ে ঢাকা মুখোশধারীরা ভোলাহাট ইউনিয়নের চরধরমপুর গ্রামের মোঃ মোশারফ হোসেনের বাড়িতে গত ২৯ অক্টোবর গভীর রাতে তার বাড়ীতে প্রবেশ করে প্রথমে তাকে বেধড়ক মারপিট করে গুরুতর আহত ও তার স্ত্রী এবং কন্যাকে শারীরিক ও শ্লীলতাহানী ঘটায়।

এঘটনায় ভুক্তভোগী জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে মোঃ মোশারফ হোসেন তার বাড়িতে সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে এ তথ্য উপস্থাপন করেন। লিখিত বক্তব্যে বলেন, মাদক চোরাকারবারীদের বিরুদ্ধে অবস্হান নেয়ায় নেপথ্যের হুকুমদাতা আব্দুল মতিনের ঈশারায় মোয়াজ্জেম হোসেন ভুটু মেম্বার ও তার সহযোগী আব্দুল মতিন, আব্দুস সবুর ওরফে রাইতুল, নূর হোসেন, এজাজুল চৌকিদারসহ ২২/২৩ জন মিলে গত ২৯ অক্টোবর দিবাগত রাত প্রায় ১টার দিকে আমার বাড়ীর টিনের দরজা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে আমাকে জাপটে ধরে বের করার চেষ্টা করলে আমার স্ত্রী জলেনুর বেগম আকুতি করলে আব্দুল মতিন ও ভুটু মেম্বার তার মাথায় পিস্তল ধরে। এসময় তারা আমার কলেজ পড়ুয়া মেয়ে মুশফিকাকে লাঠি ও রড দিয়ে আঘাত করে এবং তার গলায় হাসুয়া ধরে জবাই করার হুমকি দেয়। একপর্যায়ে রাইতুল আমার স্ত্রীর কাছ থেকে চাবি ছিনিয়ে নিয়ে আলমারীতে রক্ষিত স্বর্ণালংকার নিয়ে নেয়।

এরপর ডাকাতদল মুক্তিপণ হিসেবে আমার স্ত্রীর কাছ থেকে ১০ লক্ষ টাকা দাবী করে। এসময় তাদের কাছে আমার অপরাধের বিষয় জানতে চাইলে তারা মুখ ও চোখ কালো কাপড় দিয়ে বেঁধে ভ্যানে করে নিয়ে যাবার সময় আমার স্ত্রী ও মেয়ের চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসলে ডাকাতদলের কাছে অস্ত্র থাকায় তারা কেউ সাহস পায়নি। পরবর্তীতে ডাকাতদলের অন্যান্য সদস্যরা তেলিপাড়া গ্রামের আব্দুল খালেকের আমবাগানে নিয়ে মুক্তিপণের জন্য টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে তারা এলোপাথাড়ি ভাবে শরীরের বিভিন্ন¯স্হানে রড দিয়ে আঘাত এবং এক পর্যায়ে ভুটু মেম্বার আমার কপালে রড দিয়ে আঘাত করলে জ্ঞান হারিয়ে ফেলি। পরবর্তীতে জ্ঞান ফিরে আসলে রাস্তার উপর পড়ে থাকা অবস্হায় খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে স্ত্রী-মেয়েসহ কয়েকজন প্রতিবেশী উদ্ধার করে ওই রাতেই স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে আবাসিক চিকিৎসক ডা. হাসান আলী তার শারিরীক অবস্থার অবনতি দেখে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। এ ঘটনার সাথে জড়িতরা ক্ষমতাধর হওয়ায় তিনিসহ তার পরিবার বর্তমানে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন।

এ ব্যাপারে স্থানীয় প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেন। অভিযুক্ত ভোলাহাট ইউপির ৯ ওয়ার্ড সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন ভুটু জানান, মোশারফ হোসেনকে কে বা কারা মেরেছে বলতে পারবো না। তবে, তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগটি সত্য নয়। এদিকে ভোলাহাট থানার ওসি মাহবুবুর রহমান জানান, এখন পর্যন্ত ভুক্তভোগি ব্যক্তি থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেননি। করলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্হা গ্রহণ করা হবে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় সিসা হোস্ট