1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Editor :
চুরি হয়ে গেলো শতবর্ষী নিদর্শনটি - বাংলা টাইমস
শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১২:১৫ পূর্বাহ্ন

চুরি হয়ে গেলো শতবর্ষী নিদর্শনটি

শিবচর (মাদারীপুর) প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২২ অক্টোবর, ২০২১
  • ৬৬ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

মাদারীপুরের শিবচরের দত্তপাড়া ইউনিয়নের মগড়া পুকুরপাড় গ্রামের খবির উদ্দিন মৌলভীর বাড়ির প্রাচীন নিদর্শন শতবর্ষ আগের একটি পিতলের ডেগ চুরি হয়ে গেছে। শিবচর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মিরাজ হোসেনসহ পুলিশের দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার (২২ অক্টোবর) ফজরের নামাজের সময় মৌলভী বাড়ির পীর মরহুম খবির উদ্দিন মৌলভীর নাতি হাবিব মুন্সী মসজিদে এসে দেখেন ডেগটি নেই। ডেগ যেখানে রাখা ছিল ওই ঘরের একটি খুটি ভেঙে ডেগটি কে বা কারা চুরি করে নিয়ে গেছে। সাথে সাথে বাড়ির সকলকে বিষয়টি জানিয়ে পুলিশে খবর দেওয়া হয়।

 

পরে শুক্রবার সকালে দত্তপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র থেকে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। পুলিশ বিষয়টি নিয়ে গুরুত্বের সাথে কাজ করতে গিয়ে স্থানীয় এক বাড়ির সিসি ক্যামেরার অস্পষ্ট ফুটেজ পর্যবেক্ষন করে দেখতে পায় ভোর রাত ৩টার দিকে একটি ব্যাটারি চালিত ভ্যানে করে কাপড়ে ঢাকা ডেগ সদৃশ্য কিছু একটা নিয়ে যাচ্ছে ৩/৪ জন লোক। ধারনা করা হচ্ছে ভ্যানে করেই ডেগটি চুরি করে নিয়ে যায় চোরচক্র।

 

মৌলভী বাড়ির পীর মরহুম খবির উদ্দিন মৌলভীর নাতি হাবিব মুন্সী বলেন,’ফজরের নামাজের সময় মসজিদে এসে দেখি ডেগটি নাই। ডেগ যেখানে রাখা ছিল ওই ঘরের একটি খুটি ভেঙে ডেগটি বের করেছে। এই ডেগটি একশত বছর আগের। মসজিদের পাশেই রাখা ছিল। অনেক দূর থেকে অসংখ্য মানুষ ডেগটি দেখতে আসতো।’

 

তিনি জানান, আধ্যাত্মিক শক্তিসম্পন্ন মরহুম মাওলানা খবির উদ্দিন আহমেদ আল কাদেরী প্রায় ১শত বছর পূর্বে বাগদাদ থেকে এই ডেগটি এনেছিলেন। তার মাজারের পাশে একটি খোলা ঘরে এই ডেগটি রাখা ছিল দর্শনার্থীদের জন্য। বিশাল এই ডেগটি দেখতে দূর-দূরান্ত থেকে অনেক লোকজন আসতো। ডেগটির উপর খোদাই করে লেখা ছিল- “ডেগ ওরুচে পিরানে পীর সৈয়দ আব্দুল কাদের জিলানী– গোলাম ফকির– শ্রী মৌলবি খবির উদ্দিন কাদেরী, সাং- উৎরাইল, সন- ১৩১৯”। বাকি লেখাটুকু অস্পষ্ট ছিল। এই লেখা দেখেই ধারণা করা হয় ডেগটি বাগদাদ থেকে আনা এমন মন্তব্য স্থানীয়দের। ডেগ এর উপর দিকে কাঁধ বরাবর চারকোণে চারটি রিং রয়েছে। যার ওজন প্রায় ৪ কেজি করে। ডেগটি স্থানান্তরের জন্য পূর্ণবয়স্ক ১৪ থেকে ১৫জন লোক লাগতো এবং কমপক্ষে ৯/১০ মন খিচুরি এই ডেগ এর মধ্যে রাখা যেতো বলে স্থানীয়রা জানান। প্রায় ১শত বছর পূর্বে বাগদাদ থেকে এদেশে আনা হয়েছিল বলে জানা গেছে।

 

শিবচর থানার অফিসার ইনচার্জ মো.মিরাজ হোসেন বাংলা টাইমসকে বলেন,খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। স্থানীয় একটি সিসি টিভির ফুটেজ পর্যবেক্ষন করে বিষয়টি গভীরভাবে খতিয়ে দেখা হচ্ছে। চোরচক্রকে ধরতে অভিযান চলছে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় সিসা হোস্ট