1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Editor :
শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৬:৫২ অপরাহ্ন
নোটিশ ::
...Welcome To Our Website...

গাছে বেঁধে জামাইকে নির্যাতনকারীদের গ্রেপ্তার দাবি

মো. ইলিয়াস আলী, ঠাকুরগাঁও
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৩৬ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলায় গাছের সঙ্গে বেঁধে নাসিরুল ইসলামকে নির্যাতনকারী করিমুল ইসলামসহ বাকি আসামিদের দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবিতে স্বারকলিপি প্রদান, মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে এলাকাবাসী।

 

রাণীশংকৈল ইউএনও কার্যালয় চত্বরে বাচোর ইউনিয়নের ভাংবাড়ী এলাকাবাসীর আয়োজনে রবিবার (২৬শে সেপ্টেম্বর) মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করে।

 

এর আগে ভাংবাড়ী থেকে রাণীশংকৈল ইউএনও কার্যালয় পর্যন্ত প্রায় ৫ কিলোমিটার পথ পায়ে হেঁটে ওই গ্রামের প্রায় দুইশত মানুষ কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেয়। পরে নির্যাতনকারিদের গ্রেফতারের দাবিতে একটি স্বারকলিপি ইউএনও ও ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) কে প্রদান করে।

 

মানববন্ধনে ওই এলাকার সাধারণ মানুষ অভিযোগ করেন, নির্যাতনকারি মহিলাকে গ্রেপ্তার করলেও বাকি ৪ আসামি এলাকায় স্বাধীনভাবে ঘুরে বেড়াচ্ছে। ফলে আসামি গ্রেপ্তার না হওয়ায় ঘটনার সাক্ষীদের হুমকি দেওয়া হচ্ছে। তাই যত দ্রুত সম্ভব সকল আসামিকে গ্রেপ্তার করে দৃষ্ঠান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান এলাকাবাসী।

 

রাণীশংকৈল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহিদ ইকবাল বাংলা টাইমসকে বলেন, ছেলের বাবা বাদি হয়ে ৫ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। সেই মামলার প্রেক্ষিতে ২নং আসামি মেয়ের মা সেলিনা আক্তারকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশ অভিযান পরিচালনা করছে।

 

উল্লেখ্য, রাণীশংকৈল বাচোর ইউনিয়নের ভাংবাড়ী গ্রামের করিমুল ইসলামের মেয়ে কেয়া মনিকে (১৮) প্রেম করে বিয়ে করে একই গ্রামের খলিলুর রহমানের ছেলে নাসিরুল ইসলাম (২১)। পরে তারা দুজনেই ঢাকায় পালিয়ে যায়। বিয়ে মেনে নেওয়ার শর্তে তাদেরকে ঢাকা থেকে নিয়ে আসা হয়। পরে ছেলে মেয়েকে আলাদা করে রাখা হয়।

 

গত ২০ সেপ্টেম্বর মেয়ের পরিবারের লোকজন নাসিরুলকে গ্রামের একটি বাজার থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে একটি গাছের সঙ্গে বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় অমানবিক নির্যাতন করে। এসময় নাসিরুলের ভাই তাকে বাচাঁতে গেলে তাকেও মারধর করা হয়। পরে পুলিশের সহায়তায় গুরুতর আহত অবস্থায় নাসিরুলকে উদ্ধার করে প্রথমে রাণীশংকৈল পরে দিনাজপুর ও আজ রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয়।

 

নাসিরুলকে নির্যাতনের ভিডিও গত বৃহস্পতিবার সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হওয়ার পরেই পুলিশ নির্যাতনকারি মেয়ের মা’কে গ্রেপ্তার করে।

 

এ ঘটনায় আসামিদের দ্রুত আইনের আওতায় না আনা হলে আরও বড় আন্দোলনের হুমকি দেয় ক্ষিপ্ত এলাকাবাসী ৷

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় সিসা হোস্ট