1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Editor :
রবিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২২, ০৬:৪৭ অপরাহ্ন
নোটিশ ::
...Welcome To Our Website...

কথা বন্ধ, কণ্ঠস্বর হারালেন বাপ্পি লাহিড়ী

বাংলা টাইমস ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৭৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

করোনা আক্রান্ত হওয়ার পরও নাকি সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠতে পারেননি বাপ্পি লাহিড়ী । শুধু তাই নয়, তুমুল গুঞ্জন, কণ্ঠস্বর খুইয়েছেন সুরকার ও শিল্পী বাপ্পি লাহিড়ী। সম্প্রতি চরমে ওঠে গুঞ্জন। তোলপাড় গোটা বলিউড।

 

করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর থেকেই নাকি শরীর একেবারে ভেঙে পড়েছে। তারপরেই এই অঘটন। একেবারেই নাকি গলার স্বর হারিয়ে ফেলেছেন সুরকার। গান গাওয়া তো দূর, কথাও নাকি বলতে পারছেন না বাপ্পি লাহিড়ী।

 

শোনা যাচ্ছে গত পাঁচ মাস ধরে কথা বলা বন্ধ হয়েছে তাঁর। এই বিষয়ে এবার মুখ খুলেছেন ছেলে বাপ্পা লাহিড়ী। সংবাদ মাধ‍্যমকে তিনি জানিয়েছেন, ধীরে ধীরে সুস্থ হচ্ছেন সুরকার।

 

তবে শরীর এখনও খুবই দুর্বল। আসলে করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর ফুসফুসে সংক্রমণ হয় বাপ্পি লাহিড়ীর। তার জেরেই সুস্থ হতে এত সময় লাগছে তাঁর।

 

তবে বাবার কণ্ঠস্বর হারানোর গুঞ্জন উড়িয়ে দিয়েছেন ছেলে বাপ্পা। তাঁর কথায়, “যেটা রটেছে সেটা একদমই ঠিক নয়। আসলে চিকিৎসকের পরামর্শেই কথা বলা বন্ধ করেছেন বাবা। আশা করা যাচ্ছে দূর্গাপুজোর আগেই সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে যাবেন বাবা। পুজোর সময় ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তের সঙ্গে একটি গানের রেকর্ডিংও করার আছে বাবার।”

 

গত মার্চ মাসের শেষে করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন বাপ্পি লাহিড়ী। মুম্বই এর ব্রিচ ক‍্যান্ডি হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়েছিল তাঁকে। বর্ষীয়ান সুরকারের মেয়ে তথা গায়িকা রেমা লাহিড়ি বনসল সংবাদ মাধ‍্যমকে জানিয়েছিলেন, করোনার হালকা উপসর্গ থাকায় আগেভাগে সাবধানতা অবলম্বনের জন‍্যই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল তাঁকে। গায়কের বয়সের কথা মাথায় রেখেই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছিলেন তিনি।

 

বাবার হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার খবর পেতেই লস অ্যাঞ্জেলস থেকে উড়ে এসেছিলেন ছেলে বাপ্পা। তারপর আর ফেরত যাননি। বাবার দেখভাল করতে থেকে গেছেন এখানেই।

 

বাপ্পি লাহিড়ী বাড়ি ফেরার পর তাঁর সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন ইন্ডাস্ট্রির অনেকেই। কিন্তু তাঁদের সঙ্গেও নাকি কথা বলেননি সুরকার। এরপর থেকেই তাঁর কণ্ঠস্বর হারানোর গুঞ্জন ওঠে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় সিসা হোস্ট