1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Editor :
বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ০১:৩৪ পূর্বাহ্ন
নোটিশ ::
...Welcome To Our Website...

সরকারি চাল কা‌লোবাজারে, অবশেষে মামলা

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৩৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

কুড়িগ্রামের উলিপুরে খাদ্য বান্ধব কর্মসূ‌চির ২০ বস্তা চাল কা‌লো বাজা‌রে বি‌ক্রির সময় হাতে-নাতে আটক ক‌রে‌ পুলিশে দি‌য়ে‌ছে জনতা। এসময় চাল প‌রিবহ‌নের অভিযোগে দুই ভ্যান চালকসহ আ‌নোয়ার হো‌সেন না‌মের এক‌ ব্যক্তিকে আটক ক‌রা হয়।

 

সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর ) দুপু‌রের হ‌লেও দিনভর নানা নাটকীয়তার পরে গভীর রা‌তে থানায় মামলা দায়ের হয়।

 

পু‌লিশ ও প্রত্যক্ষদ‌র্শি সূ‌ত্রে জানাযায়, ১৩ সেপ্টেম্বর সোমবার দুপুর দেড়টার দি‌কে উ‌লিপুর খাদ্য গুদাম থে‌কে দু‌টি ভ্যান গা‌ড়ি‌তে ৫০কে‌জি ওজ‌নের সরকা‌রি সিলযুক্ত ২০বস্তা চাল বের হয়। প‌রে ভ্যান গা‌ড়ি দু‌টি শহরের মধ্য বাজা‌রের মেসার্স কা‌শেম চালকলের মালিক সেকেন্দার আলীর দোকা‌নে না‌মি‌য়ে দিতে থাকেন। এ সময় স্থানীয় লোকজ‌নের সন্দেহ হ‌লে ভ‌্যান গা‌ড়িসহ চাল আটক ক‌রে পুলিশে খবর দেয়। খবর পে‌য়ে পু‌লিশ এ‌সে ভ‌্যান চালক আব্দুল কুদ্দস ও শহীদ আলীর কা‌ছে জানতে চান।

 

তাদের ভাষ্যম‌তে চালগু‌লো খাদ্যবান্ধব কর্মসূ‌চির ডিলার পু‌বেল সরদারের। এসব চাল খাদ্য ব্যবসায়ী সে‌কেন্দার আলীর কা‌ছে বি‌ক্রির করেছেন ব‌লে জানান তারা। খবর পে‌য়ে উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক আলাউ‌দ্দিন বসু‌নিয়া ও ভারপ্রাপ্ত খাদ্য গুদাম কর্মকর্তা শা‌হিনুর রহমান ঘটনাস্থ‌লে উপ‌স্থিত হন।

 

পু‌লিশ ২০বস্তা (এক মে.টন) চাল,দোকান ম্যানেজার আ‌নোয়ার হোসেন সহ ভ্যান চাল‌কদের থানায় নি‌য়ে আ‌সেন। রা‌তে উপ‌জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক আলাউ‌দ্দিন বসুনিয়া বাদী হ‌য়ে খাদ্য বান্ধব কর্মসূ‌চির ডিলার পু‌বেল সরদার, দোকান মা‌লিক সে‌কেন্দার আলী ও ম্যানেজার আনোয়ার ‌হো‌সেনকে আসামী ক‌রে মামলা দা‌য়ের ক‌রেন। মামলা নং-১৬।

 

সরকা‌রি চাল কা‌লো বাজা‌রে বি‌ক্রির সময় হা‌তে না‌তে ধরা পড়‌লেও দিনভর খাদ্য গুদাম কর্মকর্তাদের নানা নাটকীয়তার পর গভীর রাতে মামলা হওয়ায় গুদাম কর্মকর্তাদের ভূমিকা নি‌য়েও জনম‌নে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

 

অ‌ভিযোগ উঠেছে, উপজেলা খাদ্য গুদাম কর্মকর্তা শাহিনুর রহমান উলিপুরে যোগদা‌নের পর থে‌কে একটি সিন্ডিকেট চক্রের মাধ্যমে অ‌নিয়ম-দু‌র্নী‌তি করে সরকারের লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন। সাম্প্রতিক সময়ে ধান,চাল সংগ্রহের অনিয়ম করায় উলিপুর খাদ্য গুদামে লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হয়নি। তার বিরুদ্ধে একাধিক দুর্নীতির সংবাদ গণমাধ্যমে প্রকাশিত হবার দুটি তদন্ত কমিটি গঠন খাদ্য বিভাগ। তদন্ত হবার তিন সপ্তাহ পার হলেও কোন তদন্ত প্রতিবেদন জমা হয়নি এবং স্ব কর্মস্থলে বহাল তবিয়তে রয়েছেন উপজেলা খাদ্য গুদাম কর্মকর্তা।

 

খাদ্য বান্ধব কর্মসূ‌চির চাল কালো বাজারে বিক্রির সা‌থে এ কর্মকর্তার ইন্ধন রয়েছে বলে নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যবসায়ী জানান।

 

এ ব্যাপারে উপ‌জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক আলাউ‌দ্দিন বসু‌নিয়া ব‌লেন, সরকারি চাল আটকের ঘটনায় থানায় এজাহার দেয়া হ‌য়ে‌ছে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় সিসা হোস্ট