1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Editor :
দারাজের ৭ম বর্ষপূর্তি ক্যাম্পেইন উদযাপন - বাংলা টাইমস
সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ১২:২২ পূর্বাহ্ন

দারাজের ৭ম বর্ষপূর্তি ক্যাম্পেইন উদযাপন

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৬২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

দেশের সর্ববৃহৎ অনলাইন মার্কেটপ্লেস দারাজ বাংলাদেশ সাফল্যের সাথে উদযাপন করল তাদের ৭ম বর্ষপূর্তি ক্যাম্পেইন। শীর্ষস্থানীয় ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মটি (www.daraz.com.bd) টানা সাত বছরের ব্যবসায়িক সফলতা উদযাপন করছে তাদের প্রিয় গ্রাহক, বিক্রেতা এবং অগণিত পার্টনার ও অংশীজনদের সাথে।

 

ক্রেতাদের জন্য বর্ষপূর্তিকে স্মরণীয় করে রাখতে দারাজ ‘থ্যাঙ্ক ইউ বাংলাদেশ’ প্রতিপাদ্যে প্রতি বছর এই বিশেষ ক্যাম্পেইনের আয়োজন করে।

 

এক নজরে ৭ম বর্ষপূর্তি ক্যাম্পেইন:

• ক্যাম্পেইনের প্রথম দিনে মোট বিক্রির সংখ্যা ছিল গত বছরের তুলনায় দ্বিগুণেরও বেশি।

• ক্যাম্পেইনের শেষ দিনে (৮ সেপ্টেম্বর), গত বছরের তুলনায় চার গুণ বেশি বিক্রি হয়।

• ক্যাম্পেইন চলাকালীন অর্ডারের পরিমাণ ছিল সাধারণ দিনের চেয়ে পাঁচ গুণ বেশি।

• প্রায় ১৩,৫০০ বিক্রেতা দারাজ এই ক্যাম্পেইনে অংশ নেন, যা গত বছরের তুলনায় দ্বিগুণ ছিল।

• গত বছরের তুলনায়, এই বছরের ক্যাম্পেইনে ব্যতিক্রমী প্রায় ৩০% বেশি পণ্য অন্তর্ভুক্ত করা হয়।
সোল্ড আউটঃ

• আকর্ষণীয় ৭ টাকা মিস্ট্রি বক্স অফার উন্মোচনের এক মিনিটের মধ্যেই শেষ হয়ে যায়।

• রিয়েলমি নারজো স্মার্টফোনের সকল ইউনিট ও এক মিনিটের মধ্যে বিক্রি হয়ে যায়।

সেরাদের সেরা:

• ক্যাম্পেইনের সর্বাধিক বিক্রিত পণ্যগুলো হচ্ছে – ইনফিনিক্স এইচডি-৩, রিয়েলমি নারজো, রিয়েলমি সি২০এ, রিয়েলমি ৮ প্রো, অপো এ১৬, রিয়েলমি সি২১, নকিয়া ৬.২ স্মার্টফোন, এবং এমআই টিভি।

• ক্রেতাদের আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে ছিল রিয়েলমি, স্যামসাং, অপো, অ্যামাজফিট, হাগিস, পুষ্টি, রূপচাঁদা এবং আরও কয়েকটি ব্র্যান্ড।

• ক্যাম্পেইনে যেসব ক্যাটাগরির পণ্য সবচেয়ে বেশি বিক্রি হয় তার মাঝে রয়েছে – ফ্যাশন পণ্য, ইলেক্ট্রনিক সামগ্রী, ঘরবাড়ির সরঞ্জাম, হেলথ ও বিউটি পণ্য।

 

দারাজ বাংলাদেশে লিমিটেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর সৈয়দ মোস্তাহিদল হক বাংলা টাইমসকে বলেন, ‌’আমাদের ক্রেতারা আমাদের সবচেয়ে বড় অনুপ্রেরণার উৎস।’

 

তিনি আরও বলেন, “তাদের ধারাবাহিক সমর্থন এবং আস্থা আমাদের সামনে এগিয়ে যেতে উৎসাহিত করে। আমি দারাজের সকল ক্রেতা, বিক্রেতা এবং অংশীদারদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। সাত বছরের আমাদের যাত্রা ছিল অসাধারণ; সামনের বছরগুলোতে আমরা আরও অনেকদিন এভাবেই আমাদের যাত্রা অব্যাহত রাখতে প্রত্যাশী।”

 

দারাজ: দক্ষিণ এশিয়ার শীর্ষস্থানীয় অনলাইন মার্কেটপ্লেস দারাজ, অসংখ্য বিক্রেতাকে লক্ষাধিক ক্রেতাদের সাথে যুক্ত করেছে। একশো’রও বেশি ক্যাটাগরির প্রায় ১ কোটি ৯০ লাখের বেশি পণ্য কেনাকাটায় গ্রাহকদের তাৎক্ষনিক এবং সহজ সুবিধাদানের সাথে সাথে প্রতি মাসে ২০ লাখেরও বেশি পণ্য বিশ্বের সকল প্রান্তে পৌঁছে দিচ্ছে দারাজ। দারাজ তার গ্রাহকদের জন্য একইসাথে একটি বাজার, মার্কেটপ্লেস এবং কমিউনিটি। দারাজ উদ্যোক্তাদের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো, কেননা প্রতিষ্ঠানটি প্রতিমাসে ই-কমার্স সম্পর্কে পাঁচ হাজারেরও বেশি নতুন বিক্রেতাকে সচেতন করে তোলে।

 

দারাজ বিভিন্ন লজিস্টিক চ্যালেঞ্জ কাটিয়ে উঠার লক্ষ্যে, বিশেষত তাদের ই-কমার্স অপারেশনগুলোকে মাথায় রেখে ‘দারাজ এক্সপ্রেস’ (ডেক্স নামে পরিচিত) নামক নিজেদের লজিস্টিক কোম্পানি গঠন করেছে। দারাজ বিদ্যমান এবং নতুন লজিস্টিক সরবরাহকারীদের ডিজিটালকরণে সহায়তা করছে।

 

২০১৮ সালে আলীবাবা গ্রুপ দারাজকে অধিগ্রহণ করে এবং ‘ডিজিটাল অর্থনীতির যুগে যেকোন স্থানে ব্যবসা সহজীকরণ’- এই লক্ষ্যের অংশ হিসেবে দারাজ গর্বের সাথে কাজ করে চলেছে। আলীবাবার অংশ হিসেবে, দারাজ বাজারে তার প্রতিষ্ঠানগত উন্নয়নে আলীবাবার নেতৃত্ব এবং প্রযুক্তি, অনলাইন বাণিজ্য, মোবাইল পেমেন্ট এবং লজিস্টিকের অভিজ্ঞতাকে ব্যবহার করছে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় সিসা হোস্ট