1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Editor :
শিক্ষার্থীদের কলকাকলীতে মুখরিত শিক্ষাঙ্গন - বাংলা টাইমস
রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৫:৩৭ পূর্বাহ্ন

শিক্ষার্থীদের কলকাকলীতে মুখরিত শিক্ষাঙ্গন

উত্তম কুমার হাওলাদার , কলাপাড়া (পটুয়াখালী)
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৫৫ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় শিক্ষার্থীদের কলকাকলীতে মুখরিত হয়ে উঠেছে শিক্ষাঙ্গন। দীর্ঘ ৫৪৩ দিন পর রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে শুরু হয় উপজেলার প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শ্রেণিকক্ষে পাঠদান কার্যক্রম। মানা হচ্ছে স্বাস্থ্যবিধি।

 

বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের শ্রেনীকক্ষে প্রবেশের আগে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, মাক্স ব্যবহার করা হয়েছে। পৌর শহরসহ গ্রামের কিছু কিছু বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের শরীরের তাপমাত্রা পরিমাপ করা হয়েছে। তবে বিদ্যালয়ে আসা এসব শিক্ষক ও শিক্ষার্থীসহ কর্মচারীদের মাঝে এক উৎসবের আমেজ লক্ষ করা গেছে।

 

উপজেলা প্রাথামিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা গেছে, এ উপজেলায় ২৯ টি মাধ্যমিক, ৪ টি নি¤œ মাধ্যমিক, ২৭টি মাদ্রাসা এবং প্রথামিকস্তরে ১৭১টি বিদ্যালয় রয়েছে। এছাড়া কলেজ ৬টি ও ৩ টেকনিক্যাল কলেজ রয়েছে। প্রাথমিক পর্যায়ে আজ তৃতীয় ও পঞ্চম শ্রেনীর পাঠদান শুরু হয়েছে। বাকি শ্রেনীতে সপ্তাহে একদিন পাঠদান হবে। এদিকে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের পিএসসি, এসএসসি ও এইচএসসি পরিক্ষার্থীর সপ্তাহের ৬ দিন পাঠদান চলবে। ষষ্ঠ থেকে নবম পর্যন্ত প্রত্যেক শ্রেনীতে সপ্তাহে একদিন পাঠদান চলবে।

 

উপজেলার চাকামইয়া ইউনিয়নের নুর মোহাম্মদ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেনীর শিক্ষার্থী সাইফুল ইসলাম জানান, করোনার কারনে দীর্ঘদিন বিদ্যালয় বন্ধ থাকার পর আজ রবিবার বিদ্যালয় খুলেছে। তাই বিদ্যালয় এসেছি। আর স্যারেরাও আমাদের বরন করে নিয়েছে। তবে শ্রেনীকক্ষে প্রবেশের আগে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও মাক্স দিয়েছে। এমনকি শরীরের তাপমাত্রা পরিমাপ করেছে স্যাররা।

 

ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষক মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিদ্যালয়ের শ্রেণি কক্ষে এ পাঠদান শুরু করেছি। তবে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিও ছিলো সন্তোষজনক।

 

উপজেলা প্রথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো.আবুল বাসার বলেন, শিক্ষার্থীদের জন্য স্বাস্থ্যবিধির সকল উপকরন বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সরবরাহ করবে।

 

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো.মোকলেছুর রহমান বাংলা টাইমসকে বলেন, তিনি তিনটি বিদ্যালয় পরিদর্শন করেছেন। তবে সরকারের নির্দেশনা মোতাবেক উপজেলার প্রতিটি বিদ্যালয়ে মানা হচ্ছে স্বাস্থ্যবিধি।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় সিসা হোস্ট