1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : Editor :
নিখোঁজের ১৭ দিন পর শিক্ষার্থীর মর‌দেহ উদ্ধার - বাংলা টাইমস
শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ১২:৪০ অপরাহ্ন

নিখোঁজের ১৭ দিন পর শিক্ষার্থীর মর‌দেহ উদ্ধার

শেরপুর প্রতি‌নি‌ধি
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৮৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলা থেকে নিখোঁজ হওয়ার ১৭ দিন পর বিল থেকে মো. রুবেল মিয়া (১৭) নামের এক প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীর অর্ধগলিত মর‌দেহ উদ্ধার ক‌রে‌ছে পু‌লিশ। সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) দুপু‌রে উপজেলার সদর ইউনিয়নের পাইকুড়া গ্রামের কানী বিল থেকে তার ম‌র‌দেহ উদ্ধার করা হয়।

 

নিহত রুবেল উপজেলার ধানশাইল ইউনিয়নের কান্দুলী গ্রামের নুরুল হকের ছেলে ও পাইকুড়া এ আর পি উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী। তার এক হাত ও এক পা প্রতিবন্ধী ছিল। প‌রে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (নালিতাবাড়ি সার্কেল) আফরোজা নাজনীন।

 

পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত ১৯ আগস্ট বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে দশটার দিকে মো. রুবেল মিয়া বাড়ি থেকে পাইকুড়া বাজারের উদ্দেশে বের হন। রাতে বাড়ি না ফেরায় রুবেলকে তার পরিবারের লোকজন বিভিন্ন স্বজনের বাড়িতে খোঁজাখুঁজি করেন। তবে পাওয়া যায়নি। রুবেলের ব্যবহৃত মুঠোফোনটিও বন্ধ ছিল। পরে গত ২৫ আগস্ট (বুধবার) তার বাবা মো. নুরুল হক ঝিনাইগাতী থানায় ২৫ আগস্ট সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। জিডি নম্বর- ১০৩২। আজ সোমবার দুপু‌রে এলাকাবাসী একটি মর‌দেহ দেখতে পে‌য়ে পুলিশ‌কে খবর দি‌লে পু‌লিশ ঘটনাস্থল থে‌কে তার মরদেহ উদ্ধার ক‌রে এবং রুবেলের পরিবার লাশটি রুবেলের বলে শনাক্ত করে।

 

এদিকে লাশ উদ্ধারের খবর পেয়ে শেরপুরের সি.আই.ডি ও জামালপুরের পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) দুইটি পৃথক দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

 

ঝিনাইগাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ফায়েজুর রহমান বলেন, লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে। তবে কেউ তাকে হত্যা করে বিলে ফেলে গেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় সিসা হোস্ট